অজু, গোসল ও তায়াম্মুম

অজু করার তরীকাঃ

১। অজুতে নিয়ত করা সুন্নত। ২। বিসমিল্লাহ পড়া সুন্নত। ৩। দোন হাতের কব্জিসহ তিনবার ধোয়া সুন্নত। ৪।তিনবার মেছওয়াক করা সুন্নত। ৫। তিনবার কুলি করা সুন্নত। ৬। তিনবার নাকে পানি দেওয়া সুন্নত। ৭। সমস্ত মুখ তিনবার ধোয়া সুন্নত। ৮। ডান হাতের কনূইসহ তিনবার ধোয়া সুন্নত। ৯। বাম হাতের কনূইসহ তিনবার ধোয়া সুন্নত। ১০। দোন হাতের আঙ্গুলী খিলাল করা সুন্নত। ১১। সমস্ত মাথা একবার মাছেহ্ করা সুন্নত।  ১২। কান মাছেহ্ করা সুন্নত। ১৩। গরদান মাছেহ্ করা মুস্তাহাব। ১৪। ডান পায়ের টাখনুসহ তিনবার ধোয়া সুন্নত। ১৫। বাম পায়ের টাখনুসহ তিনবার ধোয়া সুন্নত। ১৬। দোন পায়ের আঙ্গুলী খিলাল করা সুন্নত।

অজুতে ৪ ফরযঃ

১। সমস্ত মুখ ধোয়া।

২। দোন হাতের কনুইসহ ধোয়া।

৩। মাথা মাছেহ্ করা।

৪। দোন পায়ের টাখনুসহ ধোয়া।

গোসলে ৩ ফরযঃ

১। কুলি করা।

২। নাকে পানি দেওয়া।

৩। সমস্ত শরীর ধৌত করা।

তায়াম্মুমে ৩ ফরযঃ

১। নিয়ত করা।

২। সমস্ত মুখ একবার মাছেহ্ করা।

৩। দোন হাতের কনুইসহ একবার মাছেহ্ করা।

(পবিত্র মাটিতে হাত মারিয়া মাছেহ্ করিতে হয়, বিস্তারিত ও বাস্তবরূপে কোন হক্কানি আলেম থেকে শিখিয়া নিবেন।)

অজু ভঙ্গের কারণ ৭টিঃ

১। পায়খানা-পেশাবের রাস্তা দিয়া কোন কিছু বাহির হওয়া।

২। মুখ ভরিয় বমি হওয়া।

৩। শরীরের কোন জায়গা হইতে রক্ত, পুঁজ, পানি বাহির হইয়া গড়াইয়া পড়া।

৪। থুথুর সঙ্গে রক্তের ভাগ সমান বা বেশী হওয়া।

৫। চিত বা কাত হইয়া হেলান দিয়া ঘুম যাওয়া।

৬। পাগল, মাতাল ও অচেতন হইলে।

৭। নামাযে উচ্চস্বর হাসিলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: দয়া করে কপি করা থেকে বিরত থাকুন, ধন্যবাদ।