পুণ্যবতী নবী-পত্নীগণ (পর্ব-১)

হযরত আয়েশা সিদ্দীকা (রা.)

তিঁনি হযরত আবূ বকর সিদ্দীক (রা.) এর কন্যা। নবী করীম (সাঃ) এর সাথে যখন তাঁর বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়, তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ছয় বছর। হিজরতের সালে নয় বছর বয়সে তিঁনি রাসূলে আকরাম (সাঃ) এর ঘরে গমন করেন, যখন হুযূরে আকরাম (সাঃ) এর ইন্তেকাল হয়, তখন তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র আঠার বছর। নবী করীম (সাঃ) এর সাথে তাঁর নয় বছর সহাবস্থান তাঁর ভেতর কি প্রভাব বিস্তার করেছে এবং কি গভীর নববী ইল্ম তিনি লাভ করতে পেরেছেন, তা বিশিষ্ট সাহাবীদের বক্তব্য দ্বারাই অনুধাবন করা যায়। তাঁরা বলতেন, যখন কোনো মাসআলায় আমাদের কারো সন্দেহের সৃষ্টি হতো, তখন আমরা হযরত আয়েশা সিদ্দীকা (রা.) এর নিকট সে সম্পর্কে জ্ঞান লাভ এবং সন্দেহ নিরসন করতে পারতাম, এ কারণেই বিশিষ্ট সাহাবীদের অনেকেই তাঁর শাগরিদ ছিলেন।

হযরত হাফসা (রা.)

তিঁনি হযরত ওমর (রা.) এর কন্যা ছিলেন। তিনি প্রথমে উনাইস ইবনে হুযাফা (রা.) এর স্ত্রী ছিলেন। পরবর্তী সময়ে (উনাইস শহীদ হলে) হিজরি দ্বিতীয় অথবা তৃতীয় সনে নবী করীম (সাঃ) তাঁকে বিয়ে করেন। [সীরাতে মুগলতাই, পৃষ্ঠা-৪৮]

হযরত যয়নাব বিনতে খুযায়মা হিলালিয়্যা (রা.)

তিনি ‘উম্মুল মাসাকীন’ (নিঃস্বদের জননী) নামে পরিচিতা ছিলেন। প্রথমে তাঁর বিয়ে হয় তোফায়েল ইবনে হারিছের সাথে, সে হযরত যয়নাব (রা.) কে তালাক দিয়ে দেয়। এরপর তার ভাই উবায়দা (রা.) তাঁকে বিয়ে করেন। হযরত উবায়দা (রা.) বদরের যুদ্ধে শাহাদাত বরণ করলে হিজরি তৃতীয় সনে উহুদ যুদ্ধের এক মাস পূর্বে তিনি নবী করীম (সাঃ) এর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। –[সীরাতে মুগলতাই, পৃষ্ঠা-৪৯]

মাত্র দু’মাস বিবাহিত জীবন যাপনের পর তাঁর ইন্তেকাল হয়ে যায়।

হযরত উম্মে হাবীবা (রা.)

তিঁনি হযরত আবূ সুফিয়ান (রা.) এর কন্যা। প্রথমে তাঁর বিয়ে হয় উবায়দুল্লাহ ইবনে জাহাশের সাথে এবং উবায়দুল্লাহর ঔরসে তাঁর সন্তানাদিও জন্মগ্রহণ করে। তাঁরা স্বামী-স্ত্রী দু’জনই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পর হাবশায় হিজরত করেন। সেখানে যাওয়ার পর উবায়দুল্লাহ খ্রিস্টান হয়ে যায়; কিন্তু উম্মে হাবীবা নিজের ঈমানের উপর অটল থাকেন। এ খবর নবী করীম (সাঃ) এর নিকট পৌঁছলে তিনি হাবশার বাদশাহ নাজাশীর নিকট চিঠি লিখে জানালেন, তিনি যেন উম্মে হাবীবা (রা.) এর নিকট নবী করীম (সাঃ) এর পক্ষ থেকে উম্মে হাবীবা (রা.) এর নিকট বিয়ের প্রস্তাব দেন এবং নিজেই এ বিয়েতে অভিভাবকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। চারশত দীনার মোহরানা হিসেবে তিনিই আদায় করে দেন।

হযরত উম্মে সালামা (রা.)

তাঁর নাম ছিল হিন্দা। প্রথমে তাঁর বিয়ে হয় হযরত আবূ সালামা (রা.) এর সাথে এবং তাঁর পক্ষ তেকে উম্মে সালামার সন্তানাদিও জন্মগ্রহণ করে। (ওহুদ যুদ্ধে হযরত আবূ সালামা (রা.) আহত হয়ে মৃত্যুবরণ করার পর) হিজরি চতুর্থ সনের জুমাদাছ ছানী মাসে এবং কোনো কোনো বর্ণনা অনুযায়ী হিজরি তৃতীয় সনে তিনি নবী করীম (সাঃ)  এর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। -[সীরাতে মুগলতাই, পৃষ্ঠা-৫৫]
বর্ণিত রয়েছে, নবী করীম (সাঃ) এর স্ত্রীদের মধ্যে সকলের শেষে তাঁর ইন্তেকাল হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: দয়া করে কপি করা থেকে বিরত থাকুন, ধন্যবাদ।