আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের কবিতা চয়ন

মোরগ খাওয়ার কথা আলোচনা করতে গিয়ে আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের কথা মনে পড়ল। যাকে আমার শায়খ (রহ.) আমাদের সাথী করে দিয়েছেন। সে কানপুরের নিকটবর্তী “বান্দা” নামক স্থানে মাওলানা ক্বারী সিদ্দীক আহমাদ সাহেবের সাথে কয়েকবার মোরগ খেয়েছিল। রাত্রিবেলা তার শোয়ার খাট আমার সাথেই ছিল। সে আমাকে বলল হযরত আপনি যে কবিতাটি আবৃত্তি করেছেন অর্থাৎ

ان سے ملنے کی ہے یہی اک راہ
ملنے والوں سے راہ پیداکر

আল্লাহকে পাওয়ার আছে একটিই পথ,

আল্লাহওয়ালার সোহবতে যেতে কোর না অমত।

তা শুনে শুনে আমিও একটি কিবতা চয়ন করেছি। আমি বল্লাম আচ্ছা! তুমি কেমন কবিতা চয়ন করেছ শনাও দেখি। অবশ্যই তাতে আল্লাহকে পাওয়ার জন্য আল্লাহর ওলীগণের কাছে যাওয়ার এবং তাদের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলার শিক্ষা রয়েছে। তখন সে বলল, আমার কবিতার বিষয়বস্তু আপনার পঠিত কবিতার মত নয়। তবে শুনুন, বড়ই চমৎকার কবিতা….

مرغ کھانے کی ہے یہی اک راہ
کھانے والوں سے راہ پیداکر

মোরগ খাওয়ার আছে একটিই পথ

খানেওয়ালার সঙ্গ নিতে কোর না অমত

বন্ধুগণ! দেখলে তো মোরগ খাওয়ার জন্য মোরগ ভক্ষকদের সঙ্গ ধরতে হলে, আল্লাহকে পাওয়ার জন্য কোনো আল্লাহওয়ালাকে কেন ধরতে হবে না?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: দয়া করে কপি করা থেকে বিরত থাকুন, ধন্যবাদ।